আলোময়.কম হোম,ইসলাম ও বিজ্ঞান, ফিডব্যাক,অংশ নিন fb page

বুধবার, ১৩ মার্চ, ২০১৩

কুরআন ও বাইবেলে পৃথিবীর আকৃতি। ড. ক্যাম্পবেল ও ড. জাকিরের মজার বিতর্ক

ইতিহাস ও বিজ্ঞানের আলোকে কুরআন ও বাইবেল শীর্ষক ড. জাকির নায়েক ও ড. ক্যাম্পবেলের বিতর্কের প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন ড. জাকিরকে জিজ্ঞেস করলেন বাইবেল পৃথিবীর আকৃতি সম্পর্কে কী বলে।
(প্রসঙ্গক্রমে বলে রাখি কুরআনে পৃথিবীর আকৃতি নির্ভুলভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, সুরা নাযিআত, ৭৯:৩০, সুরা যুমার, ৩৯:৫  বিস্তারিত আলোচনা অন্য জায়গায় হবে)
ড. জাকির নায়েক যা বললেন তা এরকম গসপেল অব ম্যাথিউ এর ৪র্থ অধ্যায়ের ৮ম ধারায় আছে-‘শয়তান তাকে (যীশু) একটি অতি উচ্চ পাহাড়ে নিয়ে গেল এবং পৃথিবীর সব রাজ্যসমূহ ও তাদের মহিমা দেখাল’
গসপেল অব লুক (৪ অধ্যায়, ধারা-৫)-‘শয়তান তাঁকে একটি উঁচু পাহাড়ে উঠাল এবং তাকে পৃথিবীর সব রাজ্য দেখাল। ‘
আপনি যদি উচ্চতম পর্বত মাউন্ট এভারেস্টেও যান এবং আপনার দৃষ্টিশক্তি যদি খুব ভালও হয় তবুও আপনি পৃথিবীর সব রাজ্য দেখতে পাবেন না। কারণ পৃথিবী বর্তুলাকার। ফলে আপনি আপনার বিপরীত পাশে কি আছে তা দেখতে পাবেন না। বর্ণিত বক্তব্য সত্য হতো যদি পৃথিবী হতো চ্যাপ্টা। (পৃথিবীর আকার নিয়ে বিস্তারিত পোস্ট দেওয়া হবে infotech.alomoy.com -এ) ফলে বাইবেল বুঝাচ্ছে পৃথিবী চ্যাপ্টা।
উপরন্তু বুক অব ডেনিয়েল 4 অধ্যায় এর ধারা ১০-১১ তে আছে -‘স্বর্গে একটি গাছ জন্মাল এবং এটি এত বড় হলো যে সবাই পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে এটাকে দেখল ” এটা তখনই সম্ভব যখন পৃথিবী হবে চ্যাপ্টা।
ফার্স্ট ক্রনিকেলের ১৬ নং অধ্যায়, ধারা ৩০-“পৃথিবী  ঘোরে না”

পরে ড. ক্যাম্পবেল এসে বললেন বাইবেলের বুক অব আইজায়ার ৪০  নং অধ্যায়ের ২২ নং ধারায় আছে পৃথিবী বৃত্তাকার। 
পরে জাকির নায়েক এসে বললেন- সমস্যা নেই। একবার বাইবেল বলছে বৃত্তাকার, আবার বলছে চ্যাপ্টাকার। দুটোকে মেলালে পৃথিবীর মত কোন আকৃতি হয় না। হয় একটি পয়সার মতো যা মোটেই পৃথিবীর আকৃতি নয়। ছবিতে দেখুন।

ভিডিওটি দেখুন

3 মন্তব্য(গুলি):

নামহীন বলেছেন...

চমৎকার বিতর্ক

নামহীন বলেছেন...

অান্ডার বিতর্ক ।।খাইয়া দাইয়া কোন কাজ নাই তো

rasel apaa বলেছেন...

অসাধারন|যার এক অধ্যায়ে ৩ক কথা আরেক অধ্যায়ে আরেক কথা|

ইমেইলে গ্রাহক হোন